খারাপ হচ্ছে তুরস্কের পরিস্থিতি, ভূমিকম্পের পাশাপাশি চলছে ক্ষুধার সঙ্গে লড়াই

ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি। ভূমিকম্পে গিয়েছে হাজার হাজার প্রান, ছারখার হয়ে গিয়েছে তুরস্ক। ক্রমাগত বেড়ে চলেছে মৃতের সংখ্যা। ভেসে আসছে আর্তনাদ৷ তুরস্ক এবং সিরিয়ায় মৃত্যুর সংখ্যা ইতিমধ্যেই পেরিয়ে গিয়েছে ২৪ হাজার, আহতের সংখ্যায় ৫০ হাজার ছুঁইছুঁই। এদিকে যারা কোনও রকমে প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তাদের পড়তে হচ্ছে প্রবল ঠান্ডা, ক্ষুধার মুখে। বহু মানুষ না পাচ্ছেন ঠান্ডা থেকে বাঁচার কোনও জিনিস, না পাচ্ছেন পরিমাণ মতো খাবার। এ পরিস্থিতি যেন গোদের ওপর বিষফোঁড়া। 

জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র সিরিয়াতেই ৫৩ লক্ষ মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন এবং ৮ লক্ষের বেশি মানুষ খাদ্যাভাবে ভুগছেন। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই বয়স্ক ব্যক্তি এবং শিশু। তাদের কাছে ত্রাণ দ্রুত না পৌঁছলে, মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বিগত কয়েকদিন মিলিয়ে তুরস্ক এবং সিরিয়ার একাধিক অঞ্চলে কমপক্ষে পাঁচবার ভূমিকম্প হয়ে গিয়েছে। প্রতিবারই রিখটার স্কেলে তার মাপ ৬-এর ওপর ছিল।

এক ভূ বিজ্ঞানী দাবি করেছেন, কয়েকদিনের মধ্যেই প্রবল ভূমিকম্প হবে পশ্চিম তুরস্কে এবং রিখটার স্কেলে তার পরিমাপ হতে পারে ৭ বা তার বেশি! যে জায়গায় কম্পন হওয়ার কথা তিনি বলেছেন সেখানে নাকি ২৫০ বছর অন্তত ভূমিকম্পের সম্ভাবনা দেখা দেয়। আর শেষবার এই এলাকায় ভূমিকম্প হয় ২৮৭ বছর আগে। তাই বিজ্ঞানীর আশঙ্কা, পরবর্তী ভূকম্পন হওয়ার সময় চলে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *